সংবাদ শিরোনাম :
«» বিশ^ ইজতেমায় ১ম পর্বের আখেরি মোনাজাতে মুসলিম উম্মাহর শান্তি কামনা «» আমাদের সবার উচিত প্রিয় নবীর পথ অনুসরণ করা: অর্থমন্ত্রী «» গাজীপুরে ইফটিজিং এর অপরাধে যুবকের জেল «» মুসল্লিদের উপস্থিতিতে কানায় কানায় পরিপূর্ণ ইজতেমা ময়দান «» বেনাপোল পৌর শোক দিবস আজ «» কালিয়াকৈরে নবনির্মিত পৌর ভবন উদ্ধোধন «» উন্নত প্রযুক্তি ও নতুন ধানের জাতসহ দ্রুত কৃষক পর্যায়ে ছড়িয়ে দিন — কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক «» টঙ্গী কামাড় পাড়া রোডের খাজা ইউনুস আলী ট্রেডার্সে দোকান বরাদ্দ চলিতেছে «» বিধবার জমি দখল করে আদালতের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে মার্কেট নির্মান «» বিশ্ব ইজতেমায় উস্কানিমূলক বক্তব্য না দেওয়ার আহবান —- স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল

ফেসবুকের ৫ কোটি অ্যাকাউন্ট হ্যাকড, বাংলাদেশও আক্রান্ত: ক্রাফ

দেশান্তর ডেস্ক ঃ ফেসবুকের প্রায় পাঁচ কোটি অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির কর্তৃপক্ষ। প্রোফাইলের ‘ভিউ অ্যাজ’ ফিচারের মাধ্যমে এসব অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছে বলে দাবি ফেসবুকের।আক্রান্ত পাঁচ কোটি অ্যাকাউন্টের মধ্যে বাংলাদেশেরও অনেক অ্যাকাউন্ট আছে বলে দাবি করেছে ক্রাইম রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস ফাউন্ডেশন (ক্রাফ)।এছাড়া বাংলাদেশ থেকে অনেকে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েও জানিয়েছেন তাদের অ্যাকাউন্ট বারবার লগ-আউট হয়ে যাচ্ছিল।ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী মার্ক জাকারবার্গ বলেছেন, অ্যাকাউন্ট হ্যাকের প্রথম পর্যায়েই এটির তদন্তের কাজ শুরু হয়েছে।এর আগেই অবশ্য সোশ্যাল সাইটটি স্বীকার করেছে যে, নির্দিষ্ট মানুষটির কাছে নির্দিষ্ট বিজ্ঞাপন পৌঁছে দেয়ার কাজে বরাবর গ্রাহকের দেয়া ফোন নম্বরই ব্যবহার করে এসেছে তারা।ফেসবুকের এক মুখপাত্র অবশ্য বলেছেন, ব্যক্তিগত পছন্দমাফিক আমরা গ্রাহকদের পরিষেবা দিতে চাই। বিজ্ঞাপনও একটা বড় অংশ।এদিকে সম্প্রতি আমেরিকার দুটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন গবেষক দাবি করেন, গ্রাহকের কোনো পরিচয় বা তথ্যই আর ব্যক্তিগত নেই। সবটাই বেহাত হয়ে গেছে।ক্রাইম রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস ফাউন্ডেশনের (ক্রাফ) মহাসচিব মিনহার মহসিন বলেন, কয়েকদিন ধরেই আমাদের কাছে অস্বাভাবিক মাত্রায় অ্যাকাউন্ট হ্যাক হওয়ার তথ্য আসছিল।অনেক সেলেব্রিটির ব্লু ব্যাজ ভেরিফাইড আইডিও এর মধ্যে ছিল।তিনি বলেন, আমরা পরে যেটা দেখতে পাই ট্রাস্টেড কন্টাক্টস ব্রেক হচ্ছে অনেক। আমরা ভিক্টিমদের সাজেশন দেই যেন ট্রাস্টেড কন্টাক্টসে পরিবারের কাউকে না দিয়ে এমন কাউকে দিতে যেন হ্যাকার সোশ্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং করে বুঝতে না পারে।মিনহার মহসিন বলছেন, এটা খুবই স্বাভাবিক যে আমি আমার পরিবারের কাউকে ট্রাস্টেড কন্টাক্টস হিসেবেই রাখবো। সেই আইডিগুলো হ্যাকার ডিজেবল করে দিলেই আইডি ভালনারেবল হয়ে যায়।এই পন্থা অবলম্বন করার পরে তাদের কারও আইডি আর হ্যাক হয়নি বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *