সংবাদ শিরোনাম :
«» গাজীপুর ১ আসনে আ.ক.ম মোজাম্মেল হক এর প্রতি ওয়ার্ডে নৌকার প্রচারনা «» গাজীপুর ২ আসনে জাহিদ আহসান রাসেল এর নৌকার ব্যাপক প্রচারণা «» ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে দীর্ঘ যানজট যাত্রীদের চরম ভোগান্তি «» শার্শায় নৌকা প্রতীককে জয়ী করার লক্ষে উপজেলা ছাত্রলীগের তলবী সভা «» শার্শা থানা পুলিশের নির্বাচনী মহড়া «» গাজীপুর ২ আসনে জাহিদ আহসান রাসেল এমপি’র নৌকার প্রচারণায় খাদিজা রাসেল «» গাজীপুরে-২ আসনে নৌকার পক্ষে জাতীয় শ্রমিক লীগের মিছিল «» পত্র-পত্রিকায় রিপোর্ট প্রকাশিত হওয়ায় বেনাপোল স্থল বন্দরে সচল লোড আনলোড «» গাজীপুরে ছুরিকাঘাতে নিহত ১ «» বেনাপোলের সীমান্তে ভারত থেকে অবৈধ অনুপ্রবেশের সময় ৯ জন আটক ও বিপুল পরিমান ফেন্সিডিল জব্দ

গাজীপুরে পরিবহন মালিক শ্রমিক আন্দোলন যান চলাচলে বাধা, গাড়ি ভাংচুর

মোঃ রফিকুল ইসলাম রফিক, গাজীপুরঃ
গাজীপুরের টঙ্গীর চেরাগআলী মার্কেট এলাকায় পণ্যবাহি গাড়ির মালিক ও শ্রমিক ঐক্য পরিষদের ডাকে আন্দোলন চলাকালিন সময়ে মহা সড়কে চলাচলরত পন্যবাহী গাড়ি চলাচলে বাধা ও গাড়ি ভাংচুর করেন টঙ্গী ট্র্াক টার্মিনালের শ্রমিকরা। গতকাল রবিবার সকাল ১১ টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত শ্রমিকরা এ কর্মসূচি পালন করে। এ সময় তারা বেশ কয়েকটি গাড়ি ভাংচুর করে । এতে ঢাকা ময়মনসিংহ মহাসড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। খবর পেয়ে গাজীপুর মেট্রো পলিটন পুলিশের উপ-কমিশনার আহসান, টঙ্গী পশ্চিম থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) এমদাদ, ওসি তদন্ত দেলোয়ার, টঙ্গী পূর্ব থানার অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) কামাল হোসেন, ওসি তদন্ত সুব্রত ঘটনাস্থলে আসার পর শ্রমিকনেতারা তাদের ৭ দফা দাবী বাস্তবায়নের লক্ষে বিভিন্ন সেøাগানে রাজপথ অবরোধ করেন।
৭দফা দাবির মধ্যে রয়েছে- *বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ কর্তৃক পাশকৃত সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ সংশোধন করতে হবে। সড়ক দূর্ঘটনায় ৩০২ ধারায় মামলা গ্রহন করা যাবেনা, ৫লক্ষ টাকা জরিমানার বিধন বাতিল করতে হবে এবং জামিনযোগ্য ধারায় মামলা করতে হবে। আগে ট্রাক মালিক সমিতির যে সকল মালিক ও শ্রমিকদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের মুক্তি দিতে হবে। পুলিশি হয়রানি ও যেখানে সেখানে কাগজপত্র চেকিং এর নির্দিষ্ট স্থান নির্ধারণ করতে হবে। সারা দেশে গাড়ির ওভারলোডিং বন্ধ করতে হবে। এছারাও জন সাধারনের চলাচলের জন্য ফুটপাত, ওভারব্রীজ, আন্ডারপাস ও জেব্রাক্রসিং ব্যবহার করাসহ জনসচেতনতামূলক ব্যাপক প্রচার প্রচারণার ব্যবস্থা করতে হবে। সহজ শর্তে ভারি যানবাহন চালককে ভারি লাইসেন্স দিতে হবে। হালকা লাইসেন্স দ্বারা গাড়ি চালানোর সুযোগ দিতে হবে। এ ব্যপারে কোন মামলা করা যাবে না। এবং গাড়ির মডেল বাতিল করতে হলে উপযুক্ত ক্ষতিপূরণ দিতে হবে। এ বিষয়ে গাজীপুর জেলা ট্রাক মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মো. আমজাদ হোসেন বলেন, নতুন সড়ক আইনে পরিবহন চালক ও শ্রমিকদের প্রতি ন্যায় বিচার করা হয় নাই। এমন আইন বাতিল না করা পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার কথা বলেন তারা। এ ঘটনায় উপস্থিত প্রশাসনের কড়া নজরদারি ও তাদের শান্তনার বাণীতে আন্দোলন কারীরা রাজপথ ছেড়ে স্ব স্ব অবস্থানে ফিরে যান।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *