সংবাদ শিরোনাম :
«» টঙ্গীতে সড়ক দূর্ঘটনায় সাইকেল আরোহি জজ মিয়া নিহত। «» কালিয়াকৈরে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠিদের মাঝে ৪৭টি বকনা গরু বিতরণ «» আওয়ামীলীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধো ডাঃ আইনুল হক হত্যা মামলার রায়ে হতাশা ও বিস্ময় জানিয়ে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন «» গাজীপুরে আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল «» শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ, গাজীপুর মহানগর শাখা কমিটির অনুমোদন «» টঙ্গীতে আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা «» আনোয়ার হোসেনকে আহবায়ক নির্বাচিত করায় এলাকাবাসীর সন্তোষ প্রকাশ «» এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের বৈঠক ২৪ সেপ্টেম্বর «» গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীর মৃত্যু «» গাজীপুরে ট্রেনের যন্ত্রাংশ খুলে ৬ কিমি রেললাইনের ক্ষতি

দিনভর ভিআইপিদের আসা যাওয়ার পরেও রাস্তা মেরামতের কোন উদ্যোগ নেই

মোঃ হানিফ ঢালী ঃ
গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের টঙ্গী পূর্ব থানা গেইট হয়ে জয়দেবপুর গামী সড়কের বেহালদশা। থানা গেইটের উত্তর পাশের্^ মেঘনা রোডের দুই দুইটি কালভার্ট সিটি কর্পোরেশনের উদ্যোগে করা হলেও সংস্কারের কোন বালাই নেই। অল্প বৃষ্টিতেই জমাট বাধে পানি, কাদা, সহ জন ভোগগান্তি চরমে। ঈদ উপলক্ষ্যে গরুর হাট উপলক্ষ্যে হেটে চলার মতো কিছু সংস্কার হলেও পরবর্তীতে আর কারো নজরে আসেনি রাস্তাটি।ছোট বড় সব মিলে হাজারো গাড়ী চলাচল থাকার পরেও বিকল্প রাস্তা টঙ্গী রেল ষ্টেশন তিস্তার গেইট হয়ে বনমালা পারাপার করলেও বনমালা রেললাইনের উত্তর পাশের্^ সুগন্ধির বাগ ব্রিজ অভিমুখী রাস্তাটি অত্যান্ত ঝুকি পূর্ণ। সরজমিনে পর্যবেক্ষণে দেখা যায় প্রতিনিয়ত অটো রিক্সা, টেম্পু, প্রাইভেটকার, লেগুনা, রাস্তার এপারে ওপারে উল্টে পড়ে আছে। এতে যেমন ক্ষতি হচ্ছে গাড়ী চলাচলে তেমন ভোগান্তিতে পড়ছে যাত্রী সাধারণ। ঘটছে রীতি মতো দূর্ঘটনা। ঢাকা ময়মনসিংহ সড়ক মেরামতের কাজ চলমান থাকায় রাস্তার দুপাশে জড়াজীর্ন ও ড্রেন অল্প বৃষ্টিতে পানি যানজট থাকার কারনে ভিআইপি, সিআইপি সহ সর্ব সাধারনের চলাচলের উপযোগী রাস্তা পূর্ব থানা গেইট, বনমালা রেলগেইট, সুগন্ধির বাগ হয়ে জয়দেবপুর । সময়ের সাশ্রয়, অল্প রাস্তা থাকার কারনে অনেকেই বেছে নিচ্ছেন উক্ত রাস্তাটি। কিন্তু শত ভিআইপি, সিআইপি, স্থানীয় নেতাকর্মী ও সিটি কর্পোরেশনের উর্দ্ধতন কর্মকর্তাদের আসা যাওয়া থাকলেও কারো চোখ পড়েনি রাস্তাটির দিকে। এ নিয়ে সাধারন জনমনে ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন নামি, দামি গাড়ী নিয়ে অনেকেই চলাফেরা করে রাস্তাটি দিয়ে। ক্ষতি হলে গাড়ী হয়, সরকারী বিলের মাধ্যমে হাজার টাকার বিল লাখ টাকায় পরিণত করে পকেট ভারী করে নিচ্ছেন তারা। আর আমরা ছোট্র একটি গাড়ী কয়েকজন যাত্রী নিয়ে জয়দেবপুরের দিকে রওনা করলে সব সময় আতঙ্ক কাজ করে কখন জানি গাড়ী উল্টে পানিতে পড়ে না যাই। এমন ঝুকি নিয়ে সার্বক্ষনিক গাড়ী চালাতে হয় রাস্তাটি দিয়ে। তাই উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের সু-দৃষ্টি কামনা করছি উল্লেখিত রাস্তাটির দ্রæত সংস্কারের দাবী জানিয়ে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *