সংবাদ শিরোনাম :
«» টঙ্গীতে সড়ক দূর্ঘটনায় সাইকেল আরোহি জজ মিয়া নিহত। «» কালিয়াকৈরে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠিদের মাঝে ৪৭টি বকনা গরু বিতরণ «» আওয়ামীলীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধো ডাঃ আইনুল হক হত্যা মামলার রায়ে হতাশা ও বিস্ময় জানিয়ে পরিবারের সংবাদ সম্মেলন «» গাজীপুরে আওয়ামী লীগের বিক্ষোভ মিছিল «» শেখ রাসেল জাতীয় শিশু কিশোর পরিষদ, গাজীপুর মহানগর শাখা কমিটির অনুমোদন «» টঙ্গীতে আ’লীগের বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা «» আনোয়ার হোসেনকে আহবায়ক নির্বাচিত করায় এলাকাবাসীর সন্তোষ প্রকাশ «» এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যানদের বৈঠক ২৪ সেপ্টেম্বর «» গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামীর মৃত্যু «» গাজীপুরে ট্রেনের যন্ত্রাংশ খুলে ৬ কিমি রেললাইনের ক্ষতি

রাজধানীর ওয়ারীতে মুন্না হত্যার অভিযোগে ১৭ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

এস,এম,মনির হোসেন জীবন :

রাজধানীর ওয়ারীতে পূর্ব শক্রতার জের হিসেবে কিশোর মুন্না (১৯)কে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে ১৭ জনকে গ্রেফতার করেছে ডিএমপির ওয়ারী থানা পুলিশ। আটককৃতদের মধ্যে ৪ জন প্রাপ্ত বয়স্ক এবং বাকি ১৩ জন অপ্রাপ্ত বয়স্ক। গ্রেফতারকৃতরা হলেন- বাপ্পী (২৩), মোঃ ফেরদৌস (১৮), জিসান (১৯), লাবিব (১৮)। গ্রেফতারকৃত বাকী ১৩ জন অপ্র্রাপ্ত বয়স্ক। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় সোমবার পৃথক অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করেছে ওয়ারী থানার একাধিক টিম। ডিএমপির এক সংবাদ বিঞ্জপ্তিতে আজ এতথ্য জানানো হয়েছে। এবিষয়ে আজ মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় ডিএমপি ওয়ারী বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) শাহ ইফতেখার আহমেদ পিপিএম এক প্রেসব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের এতথ্য জানান। সংবাদ সম্মেলনে এসময় ওয়ারী বিভাগের পুলিশের অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। তিনি জানান, পূর্ব শক্রতার জের ধরে মুন্নাকে হত্যা করা হয়েছে। গত রোববার (৩০ আগস্ট) বিকাল ৫ টার দিকে রাজধানীর ওয়ারী থানার চন্দ্রমোহন বসাক স্ট্রিটের রাধা গোবিন্দ ঝিউ মন্দিরের কাছে মুন্না (১৮) ও শাহিন (১৭) কে কয়েকজন মিলে চাকু ও লোহার রড দিয়ে আঘাত করে গুরুতর রক্তাক্ত জখম করেন। মুমূর্ঘ অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুন্নাকে মৃত ঘোষণা করেন। ওয়ারী বিভাগের পুলিশের ডিসি বলেন, আহত শাহিন গুরুতর অবস্থান ঢাকা মেডিকেলে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার অবস্থাও সংকটাপন্ন। এই ঘটনায় একদিন পর গত ৩১ আগস্ট নিহত মুন্নার বাবা বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামাদের বিরুদ্ধে ওয়ারী থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরবর্তী সময়ে ঘটনাস্থলের সিসিটিভি ফুটেজ বিশ্লেষণ করে হত্যাকাণ্ডে অংশগ্রহণকারীদের সনাক্ত করে তাদের গ্রেফতার করা হয়। ডিসি ওয়ারী শাহ ইফতেখার আহমেদ সাংবাদিকদেরকে আরো জানান, গ্রেফতারকৃতরা অধিকাংশই কর্মজীবী কিশোর। প্রায় এক বছর আগে গ্রেফাতারকৃত বাপ্পি ও ভিকটিম মুন্নার সাথে শরীরে ধাক্কা নিয়ে ঝগড়া ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এই ঝগড়া শক্রতায় রূপ নিয়ে প্রতিশোধ নিতেই গ্রেফতারকৃরা মুন্না ও শাহিনকে মারধর করলে এঘটনা ঘটে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *