সংবাদ শিরোনাম :

টঙ্গীতে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি প্রার্থীর বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও থানায় মিথ্যা মামলার অভিযোগ।

টঙ্গী (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ
গাজীপুরের টঙ্গী এরশাদ নগরে ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি প্রার্থীর আমির হামজার বিরুদ্ধে অপপ্রচার ও থানায় মিথ্যা মামলা দায়ের করার অভিযোগে স্থানীয় এমপি যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর বাড়িতে অবস্থান নেয় আমির হামজার ৫শতা পাঁচ শতাধিক অনুসারী   পরে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী চাচা ও গাজীপুর  মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতির কাছে অভিযোগ করে বলেন,পুলিশ ঘটনার সত্যতা যাচাই বাছাই না করে এক পক্ষের মিথ্যা মামলা গ্রহণ করেছে আমরা এই মামলার তিব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এমন কি মিথ্যা মামলা দায়ের ও আমির হামজার বিরুদ্ধে যারা সামাজিক রাজনৈতিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করতে করতে চেষ্টা চালাচ্ছে তাদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার দাবী জানাচ্ছি।
এ ব্যাপারে আমির হামজার সাথে কথা হলে তিনি বলেন, সুজন ও তার সহকারীরা এলাকার চিহ্নিত ছিনতাইকারী। তারা বিভিন্ন সময় এলাকায় ছিনতাই রাহাজানি করে থাকে। ঘটনার দিন
আমার অটোরিকশা ড্রাইভার ৪নং ব্লক মোল্লা বাড়ি সামনে আসলে অটোরিকশা ছিনতাই এর উদ্দেশ্যে মারধর করে একসময় চিৎকার চেঁচামেচি শুরু হলে ছিনতাই করতে ব্যার্থ হয়ে সুজন ও তার সহকারীরা আমার রিকশার ড্রাইভারকে সুইচগিয়ার ছুরি দিয়ে আহত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে এলাকাবাসী তাদের আটক করেন এবং আমার ড্রাইভারকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে।
তিনি আরো বলেন, আমার ড্রাইভারের ব্যবহারিত ফোনটি সুজনের পকেট থেকে এলাকাবাসী উদ্ধার করে আমাকে ফোনে জানালে আমি ড্রাইভারকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে থানায় অভিযোগ করতে বলি।
এলাকার লোকজন সুজন ও তার অপর সহকারী ১জনকে আটক করে আমার গ্যারেজে নিয়ে আসে। এবিষয়ে আমাকে অবগত করলে আমি দ্রুত সময়ের মধ্যে আমার গ্যারেজে আসি এবং ৯৯৯ এ কল দিয়ে টঙ্গী পূর্ব থানায় বিষয়টি জানাই।
এরপর সুজন জানায় সে ৪৯নং ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি জুয়েল হোসেন জয়ের ভগ্নীপতি তখন জুয়েলকে বিষয়টি জানালে জুয়েল বলেন এবিষয় আমি কিছু জানিনা তাকে পুলিশের হাতে তুলে দাও আমি তার কথা মতো তার স্ত্রীকে খবর দেই এবং পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে পুলিশে উপস্তিতিতে তাকে সতর্ক করে তার স্ত্রী জিম্মায় চিকিৎসার জন্য তুলে দেওয়া হয়।
এরপরের দিন তারা আমাকে সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অপপ্রচার চালায় এমন কি টঙ্গী পূর্ব থানায় একটি মিথ্যা মামলা দায়ের করেন।
এবিষয় মামলার তদন্ত কারি কর্মকর্তা সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন,আপাতত কোন তথ্য আমরা প্রকাশ করতে পারছিনা বিষয়টি এখও তদন্তাধীন আছে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *