সংবাদ শিরোনাম :

শার্শায় যুবক হত্যার আসামীরা ধরা ছোঁয়ার বাহিরে

মো: সাগর হোসেন,বেনাপোল প্রতিনিধি:

ঘটনার ছয় দিন অতিবাহিত হলেও হত্যা মামলার আসামীরা ধরা ছোয়ার বাহিরে। ঘটনাটি ঘটেছে যশোরের শার্শা উপজেলার লাউতাড়া গ্রামে। পৈত্রিক সম্পত্তির উপর দিয়ে যাতায়াতের পথ না দেওয়ায় প্রতিবাদ করায় পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে প্রকাশ্যে ঘর থেকে ডেকে এনে নিরঅপরাধি হাতেম আলীকে বাসের লাঠির আঘাতে রক্তাক্ত জখম করে পার্শ্ববর্তি প্রতিবেশী মৃত মশিয়ার রহমানের পুত্র বাবলু ও জাহাঙ্গীর। ঘটনাটি ঘটে গত ১৩ই সেপ্টেম্বর দুপুর আড়াইটার সময়।

মৃত আব্দুল খালেকের পুত্র হাতেম আলীর স্ত্রী আসমা খাতুন জানান, তার স্বামী দুপুরের খাবার খেয়ে বাসায় বিশ্রাম করছিল। এ সময় আসামি বাবলু ও জাহাঙ্গীর তাকে ডেকে নিয়ে উঠানে দাড়িয়ে কথা বলছিল। এ সময় আসামীরা অজ্ঞাতসারে বাসের লাঠি দ্বারা মাথায় আঘাত করলে হাতেম আলী জ্ঞান হারিয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তাৎক্ষনিক ভাবে নাভারণ হাসাপাতালে চিকিৎসার জন্য গেলে তাদেরকে যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে রের্ফাড করে। এখানেও চিকিৎসা না দেওয়ায় ঐ রাতেই ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে যাওয়া হয়। ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করার পর তাৎক্ষনিক ভাবে হাতেম আলীকে মাথা অপারেশন করে এবং আইসিইউতে একদিন থাকার পর মৃত্যুবরণ করে।

যশোর জেনারেল হাসপাতালে ময়না তদন্তের পর পারিবারিক কবর স্থানে হাতেম আলীর লাশ জানাজা শেষে দাফন করা হয়। এঘটনায় হাতেম আলীর স্ত্রী আসমা খাতুন বাদী হয়ে স্বামী হত্যার বিচার চেয়ে শার্শা থানায় আসামীদের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

এ ব্যাপারে শার্শা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. বদরুল আলম খান জানান, আসামীরা ঘটনার পর থেকে আত্মগোপন করেছে। তবে আসামীরা যেখানেই থাকুক অচিরেই আসামীদ্বয়কে গ্রেপ্তার করা হবে। পুলিশ এ ব্যারে তৎপর রয়েছে। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে।

Comments

comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *